আঃ রহিম কর্তৃক ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতিসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দের নামে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

ডেস্ক রিপোর্টঃ সাতক্ষীরার শ্যামনগরে জামায়াত সমর্থিত চেয়ারম্যান আঃ রহিম কর্তৃক একাধিক নাটক সাজিয়ে ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তানসহ পর্যায়ের নেতৃবৃন্দের নামে হয়রানি মূলক মিথ্যা মামলা ও সুষ্ঠু তদন্তের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বিকালে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের আব্দুল মোতালেব মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান পরানপুর গ্রামের মৃত জি এম আঃ করিমের পুত্র ও কৈখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জি এম রেজাউল করিম।
লিখিত অভিযোগে তিনি বলেন, আমি ও আমরা কৈখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে জয়াখালী গ্রামের শেখ আবু দাউদের পুত্র জামায়াত সমর্থিত চেয়ারম্যান মামলাবাজ আব্দুর রহিমের ষড়যন্ত্রের হাত থেকে রক্ষা পেতে আপনাদের সামনে হাজির হয়েছি। আমরা বর্তমানে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের বাংলাদেশে অবস্থান করছি। আমি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি এবং মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান হয়েও একজন চিহ্নিত জামায়াত সমর্থিত ব্যক্তি আব্দুর রহিমের ষড়যন্ত্রে দিশেহারা হয়ে পড়েছি। আগামী নির্বাচনে যাতে জননেত্রী শেখ হাসিনার নৌকা প্রতীকের কোন প্রার্থী কৈখালীতে না থাকে সে কারনে বিভিন্ন সময়ে কাল্পনিক গল্প সাজিয়ে আমাকে সহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, শ্রমিকলীগসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের নামে দস্যুতা, চাঁদাবাজিসহ একাধিক মিথ্যা মামলা দায়ের করে হয়রানি করে যাচ্ছে। এসব মামলায় ইতোমধ্যে কয়েকটি তদন্তে মিথ্যা প্রমানিত হয়েছে। এরপরও ক্ষ্যান্ত না থেকে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে যাতে আমি প্রতি›দ্ব›দ্বীতা করতে না পারি সেকারনে একাধিক মিথ্যা মামলায় দায়েরের ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। গত ১৫ নভেম্বর ২০২০ সন্ধ্যায় চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম আর একটি নতুন নাটক সাজিয়ে তাকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে মর্মে প্রচার দেন। সে দাবি করেছে তার মাথায় গুলি করা হয়েছে, এরপরও আবার ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয়েছে আব্দুর রহিমকে। অথচ ঘটনাস্থল এবং তার ক্ষত স্থান দেখলে যে কোন ব্যক্তিই বুঝতে পারবেন সেটি সম্পূর্ণ সাজানো। আমরা ধারনা করছি অন্য কিছুর রক্ত গায়ে মেখে, বেøড দিয়ে মাথায় চিরে এবং পুরানো একটি গুলি খোসা উপস্থাপন করে এধরনের মিথ্যা নাটক সাজিয়েছেন মামলাবাজ চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম। ওই মিথ্যা নাটককে পুজি করে আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়েরের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন কৌশলে ফেসবুকসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে তাকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে মর্মে প্রচার করান। এমনকি ফেসবুক লাইভে গিয়ে ওই ঘটনায় আমি সহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও বিভিন্ন অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ জড়িত মর্মে অবান্তর বক্তব্য উপস্থাপন করেন। যা সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং উদ্দেশ্যে প্রণোদিত। আর এই মিথ্যা ঘটনায় আমাকেসহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়েরের চক্রান্ত চালিয়ে যাচ্ছে চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম। তিনি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম কর্তৃক মিথ্যা মামলার হাত থেকে রক্ষা পেতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তিনি।

Related posts

Leave a Comment