দেবহাটায় মহানবী (সঃ) কে নিয়ে ফেসবুকে কটুক্তি করায় যবিপ্রবির শিক্ষার্থী আটক

দেবহাটা প্রতিনিধিঃ সাতক্ষীরার দেবহাটায় মহানবী (সঃ) কে নিয়ে ফেসবুকে কটুক্তি করায় যবিপ্রবির শিক্ষার্থীকে আটক করেছে পুলিশ। আটক ঐ শিক্ষার্থীর নাম মিঠুন মন্ডল। মিঠুন সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার নারিকেলি গ্রামের জুগল মন্ডলের ছেলে। সে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী। তার বিরুদ্ধে দেবহাটা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মিঠুন কুমার মন্ডল যশোর বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং ডিপার্টমেন্টের ১ম বর্ষের শিক্ষার্থী। সোমবার ভোররাতে তাকে নিজ বাড়ি সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার নারিকেলী থেকে আটক করে পুলিশ। সে নারিকেলী গ্রামের জুগল মন্ডলের ছেলে। উল্লেখ যে, দেশের চলমান ধর্ষণ পরিস্থিতি নিয়ে বিভিন্ন ব্যক্তি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিবাদ জানাচ্ছেন। তেমন এক ব্যক্তি প্রতিবাদ জানালে মিঠুন কুমার (Mithun Kumar) নামক ফেসবুক থেকে ইসলাম ধর্মের শ্রেষ্ট নবী সর্বকালের মহামানব প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) ও সর্বশ্রেষ্ঠ মহাগ্রন্থ কুরআনকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে। পরে বিষয়টি নানা ভাবে ছড়িয়ে পড়ে। এ বিষয়টি সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপারের নজরে আসলে ডিবি পুলিশকে তদন্তের নির্দেশ দেন। ঐ রাতেই অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে ডিবি পুলিশ ও দেবহাটা থানা পুলিশ। এদিকে সোমবার (১২ অক্টোবর) সকালে যবিপ্রবির উপাচার্যের কার্যালয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস কমিটি, শিক্ষক সমিতি ও কর্মকর্তা সমিতির জরুরি সভায় তার ছাত্রত্ব বাতিলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন যবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন। সভায় মিঠুন মন্ডলের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনসহ প্রচলিত আইনে মামলা দায়ের এবং এ বিষয়ে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সহায়তা করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে বলে বৈঠক সূত্র জানায়। এছাড়া ঘটনায় চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে। কমিটির আহ্বায়ক হয়েছেন ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের ডিন ড. মো. মেহেদী হাসান। কমিটির সদস্যরা হলেন বিজ্ঞান অনুষদের ডিন ড. সুমন চন্দ্র মোহন্ত, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ আমজাদ হোসেন, ড. ইঞ্জিনিয়ার এবং সদস্য সচিব কর্মকর্তা সমিতির সহ-সভাপতি মোঃ নজরুল ইসলাম। কমিটিকে আগামী ৭ কার্য দিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পর তার বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে চুড়ান্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এদিকে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, সাস্প্রদায়িক উস্কানির অভিযোগে গতকাল রাতেই মিঠুন মন্ডলকে তার নিজ বাড়ি থেকে আটক করেছে ডিবি পুলিশ। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মিঠুনকে সাতক্ষীরা ডিবি কার্য্যালয়ে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছিলো বলে জানা গেছে।

Related posts

Leave a Comment