শ্যামনগরের চাঞ্চল্যকর শিশু ধর্ষন মামলার পলাতক আসামীকে খুলনা থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব

আল ইমরানঃ সাতক্ষীরার শ্যামনগরের চাঞ্চল্যকর ৪ বছরের শিশু ধর্ষন মামলার পলাতক আসামী আল-আমিন গাজীকে খুলনা থেকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব সদস্যরা। শুক্রবার বিকালে র‌্যাব সাতক্ষীরা ক্যাম্পে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। এর আগে সকালে তাকে খুলনা শহরের সোনাডাঙ্গা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
গ্রেপ্তারকৃত ধর্ষক আল-আমিন গাজী (৩৫) শ্যামনগর উপজেলার গাবুরা ইউনিয়নের চাঁদনীমূখা গ্রামের ময়নুদ্দীন গাজীর ছেলে।
র‌্যাব-৬ এর সাতক্ষীরা ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার স্কোয়াড লিডার ইশতিয়াক হোসাইন সংবাদ সম্মেলনে জানান, গত ২২ নভেম্বর বিকাল ৪ টার দিকে ৪ বছরের ওই শিশু ও তার ভাই বাড়ির পাশে চাঁদনীমুখা গ্রামের মধ্যম পাড়া বাইতুল মোকারম জামে মসজিদের পশ্চিম পাশে ফাঁকা জায়গায় খেলাধুলা করছিল। এ সময় ধর্ষক আল-আমিন গাজী কদবেল খাওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে মসজিদের বাথরুমের মধ্যে নিয়ে যায় ওই কন্যা শিশুকে। এরপর তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় শিশুটির আতœচিৎকার শুনে তার আত্বীয়-স্বজনসহ আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে অভিযুক্ত ধর্ষক আল আমিন গাজী ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় নির্যাতিতা শিশুটির দাদী বাদী হয়ে অভিযুক্ত আল-আমিন গাজীর বিরুদ্ধে শ্যামনগর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং- ২৯, তারিখ ২৩/১১/২০২১।

এ মামলায় র‌্যাব সাতক্ষীরা ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল তদন্ত শুরু করেন এবং এজাহারনামীয় একমাত্র পলাতক আসামীকে গ্রেপ্তার করতে গোয়েন্দা তৎপরতা অব্যাহত রাখেন। এক পর্যায়ে শুক্রবার সকালে তাকে খুলনা শহরের সোনাডাঙ্গা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি আরো জানান, গ্রেপ্তারকৃত ধর্ষক আল-আমিন গাজীকে শ্যামনগর থানায় হস্তান্তরের প্রক্রিয়া চলছে।

Related posts

Leave a Comment