আশাশুনির আলোচিত শরবত হত্যা মামলায় প্রধান আসামী চেয়ারম্যান ডালিম গ্রেপ্তার

সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার গদাইপুর গ্রামের আলোচিত ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা শরবত আলী মোল্যা হত্যা মামলার প্রধান আসামী খাজরা ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্নসম্পাদক শাহানেওয়াজ ডালিমকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। মঙ্গলবার ভোর রাত এক টার দিকে ঢাকার খিলখেত থানাধীন একটি নিজস্ব ফ্লাট থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।
মামলার বিবরণে জানা যায়, গত ৮ এপ্রিল গদাইপুর বিলে মঞ্জুরুল মোল্যার চিংড়ি ঘেরের দু’ কর্মচারিকে বেঁধে রেখে মাছ লুটের ঘটনায় থানায় অভিযোগ দিলে ক্ষুব্ধ হন গদাইপুর গ্রামের মোজাহার সরদারের ছেলে আওয়ামীলীগ নেতা চেয়ারম্যান শাহানেওয়াজ ডালিম। এরই জের ধরে ডালিমের দু’ ভাইসহ তার সমর্থকরা ৯ এপ্রিল রাতে শরবত ও মঞ্জুরুল মোল্যার চিংড়ি ঘেরে লুটপাট চালায়। ১০ এপ্রিল সকালে চেয়ারম্যানের ভাই আহসান হাবিব টগর গদাইপুর মাছের সেটে বিক্রি করতে গেলে শরবত মোল্যার সঙ্গে বচসা বাঁধে। এ নিয়ে হাতাহাতিও হয়। একপর্যায়ে চেয়ারম্যান তার ভাই টগরকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে এমন প্রচার দিয়ে তার পক্ষের লোকজনকে সংগঠিত করে শরবত মোল্যাকে তার বাড়ির পাশের পুরাতন কবরস্থানের পাশে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করে চেয়ারম্যান সমর্থকরা। শরবতকে রক্ষায় এগিয়ে গেলে স্ত্রী শরিফা খাতুন ও প্রতিবেশি আরিফা খাতুন, তুয়ারডাঙার সুবিমল বিশ্বাসসহ কয়েকজনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করা হয়। ভাঙচুর করা হয় তাদের বাড়িসহ পাঁচটি বাড়ি। শুক্রবার সকালে তার দু’ ছেলে সবুজ ও শিমুল, তাকে ও স্বামীকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল ও পরে খুলনা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করে। এরপর ১১ এপ্রিল রাত একটার দিকে শরবত চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়ায় ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী ডালিম ও তার কয়েকজন সহযোগীদের বাড়ি ভাঙচুর করে। নিহত শরবতের ছেলে সবজু তার বাবাকে হত্যার অভিযোগে ১১ এপ্রিল শনিবার রাতেই ডালিমকে প্রধান আসামী করে ৫৭ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় মামলা করে। রাতেই পুলিশ চেয়ারম্যানের ভাই জুলফিকার জুলি, আব্দুস সালাম বাচ্চুসহ ১০জনকে গ্রেপ্তার করে। এদিকে, চেয়ারম্যানের ভাই আহসান হাবিব টগরের উপর হামলা ও চেয়ারম্যানের বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় তার আরএক ভাই ওবায়দুল্লাহ ডাবলু বাদি হয়ে থানায় পৃথক দু’টি মামলা করেন। মামলা দু’টিতে শরবতের ছেলে সবুজ, শিমুল ও কয়েকজনকে অসামী করা হয়। দীর্ঘ সাড়ে পাঁচ মাস পর চেয়ারম্যান শাহানেওয়াজ ডালিমকে ঢাকার খিলখেত থানা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।
সাতক্ষীরা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক ইয়াছিন আলম চৌধুরী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আওয়ামী লীগ নেতা শরবত হত্যা মামলার আসামী শাহানেওয়াজ ডালিমকে গ্রেপ্তারে করে ঢাকা থেকে সাতক্ষীরায় আনা হচ্ছে।

Related posts

Leave a Comment